অসম আদিত্য - দেশ-জাতিৰ অতন্দ্ৰ প্ৰহৰী
শেহতীয়া খবৰ
পাকিস্তানৰ বিখ্যাত আনাৰকলি বজাৰ অঞ্চলত বোমা বিস্ফোৰণ-পদ্মশ্ৰী উদ্ধাৱ কুমাৰ ভৰালীৰ আত্মসমৰ্পণ-গণৰাজ্য দিৱস সমাগত, খাদী বৰ্ডৰ একাংশ কৰ্মচাৰী ব্যস্ত হৈ পৰিছে ৰাষ্ট্ৰীয় পতাকা সাজি উলিওৱাত-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-চীনে কৃত্ৰিম সূৰ্যৰ পিছত এতিয়া নকল চন্দ্ৰ (Artificial Moon) নিৰ্মাণ কৰিছে-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-দেশত কোৰোণাত আক্ৰান্তৰ সংখ্যা দিনক দিনে বৃদ্ধি পাইছে-নামনিৰ ৰে’ল যোগাযোগৰ ক্ষেত্ৰত আজি এক ঐতিহাসিক দিন

ঢাকায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারিয়ে হকিতে ব্রোঞ্জ জয় ভারতের

0

মঙ্গলবার জাপানের কাছে হেরে এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন শেষ হয়ে গিয়েছিল ভারতের। অন্যদিকে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান হেরেছিল দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে। ফলে আজ ব্রোঞ্জ পদকের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। লিগ পর্যায়ের সাক্ষাতে ভারত জিতেছিল ৩-১ গোলে। কিন্তু আজ লড়াই পদকের বলে পাকিস্তান সহজে ছেড়ে দেবে না জানা ছিল।প্রথম কোয়ার্টারে মাত্র দেড় মিনিটে লিড নেয় ভারত। পেনাল্টি কর্ণার থেকে গোল করেন হরমনপ্রীত। কিন্তু কয়েক মিনিট পর এই ম্যাচে সমতা ফিরিয়ে আনে পাকিস্তান। গোল করেন আফরাজ। দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ভারত চারটি পেনাল্টি কর্নার আদায় করলেও একটিও গোল করতে পারেনি। পাকিস্তান ডিফেন্সে অভিজ্ঞ শাকিল বাট দায়িত্ব নিয়ে খেললেন। ভারতীয় ফরওয়ার্ড লাইনে আকাশদীপ, শামসের, শিবানন্দ ফিনিশ করতে পারছিলেন না। উল্টে তৃতীয় কোয়ার্টারের শুরুতেই হলুদ কার্ড দেখে ৫ মিনিট বাইরে চলে গেলেন ভারত অধিনায়ক মনপ্রীত। আব্দুল রানা গোল করে এগিয়ে দিলেন পাকিস্তানকে। তৃতীয় কোয়াটারে আরো দুটো পেনাল্টি কর্নার আদায় করলেও কাজের কাজ করতে পারছিল না ভারত। হার্দিক একটা দেখার মত ক্রস বাড়ালেও ভারতের কেউ ট্যাপ করতে পারেননি।তবে এই কোয়ার্টার শেষ হওয়ার কয়েক সেকেন্ড আগে গোল পেয়ে গেল ভারত। গুরসাহেবর বাড়ানো বল থেকে গোল করেন সুমিত। শেষার্ধে খেলা শেষ হতে তখন মিনিট সাতেক বাকি। পেনাল্টি কর্ণার আদায় করল ভারত। বরুণ কুমার গোল করলেন। এগিয়ে গেল ভারত। এক মিনিট পর আবার পেনাল্টি কর্ণার আদায় করল পাকিস্তান। তবে গোল হয়নি।উল্টে হলুদ কার্ড পেয়ে বেরিয়ে গেলেন হার্দিক। একজন কমিয়ে খেলাটা শেষ করতে হত ভারতকে। কাউন্টার আক্রমণ থেকে চতুর্থ গোল তুলে নিল ভারত। ললিত উপাধ্যায় বল ধরে বাড়ালেন আকাশদীপকে। গোল করতে ভুল করেননি তিনি। কিন্তু এক মিনিট পর ব্যবধান কমাল পাকিস্তান। গোল করলেন আহমেদ নাদিম।আবার হলুদ কার্ড দেখে বেরিয়ে গেলেন সুমিত। দুজন কম খেলোয়ার হল ভারতের। তবে শেষ কয়েক সেকেন্ড ভারতীয় ডিফেন্সে হরমন এবং বরুণ কুমার সর্বস্ব উজাড় করে দিলেন। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জয় করল ভারত

Leave A Reply

Your email address will not be published.