অসম আদিত্য - দেশ-জাতিৰ অতন্দ্ৰ প্ৰহৰী
শেহতীয়া খবৰ
আজিৰে পৰা ৰাজ্যত চলিব কোভিড ভেকচিনৰ বিশেষ অভিযান-আজিৰে পৰা ৰাজ্যত চলিব কোভিড ভেকচিনৰ বিশেষ অভিযান-আজিৰে পৰা আৰম্ভ হ'ব যোৰহাট-মাজুলী সংযোগী (Jorhat-Majuli Bridge) দলংখনৰ নিৰ্মাণৰ কাম-BARTALAAP EPI 11th - PART 2-কোৰোণা ভাইৰাছৰ নতুন ভেৰিয়েণ্ট অমিক্ৰণ (Coronavirus Omicron)ক লৈ চিন্তিত হৈ পৰিছে ভাৰত চৰকাৰ-হিন্দুস্তান ইউনিলিভার লিমিটেড এবং আইটিসি লিমিটেডের সাবান এবং ডিটারজেন্ট পাউডার-সহ নির্দিষ্ট কয়েকটি প্রোডাক্টের দাম বাড়ানো হয়েছে-বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল (Arun Dhumal) জানিয়ে দিলেন যে, পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী খেলা হবে-ভাৰতলৈ আহিব ৰাছিয়াৰ ৰাষ্ট্ৰপতি ভ্লাদিমিৰ পুটিন-বিশ্বত আকৌ কোৰোণাৰ নতুন ভেৰিয়েণ্টৰ আতংক-প্রো কাবাডি লিগ সিজন -৮ আগামী ২২ শে ডিসেম্বর থেকে উদ্যান নগরী বেঙ্গালুরুতে শুরু হচ্ছে

ক্রিপ্টোকারেন্সিকে সরাসরি নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে বিল আনতে চলেছে ভারত সরকার

0

দেশে ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েই ছিল। কখনও ক্রিপ্টোকারেন্সিকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছিল আবার কখনও দ্বিমত পোষণ করেছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়াও। তবে এবার ক্রিপ্টোকারেন্সিকে সরাসরি নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে বিল আনতে চলেছে ভারত সরকার৷ আরবিআই জানিয়েছিল ডিজিটাল মুদ্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য আগে একটি পরিকাঠামো ও কমিটি তৈরি করে, ফের এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। 

চলতি বছরের মার্চে সুপ্রিম কোর্ট এও এই বিষয়টি ওঠে। সেখানে যদিও আরবিআই এর সার্কুলারকে মান্যতা দেওয়া হয়নি। ব্যাঙ্ক এবং অন্যান্য বেসরকারি সংস্থা যাতে এই কারেন্সি ব্যবহার না করে এখনই সেই কথা বলা হয়েছিল। সমস্যা মেটাতে এবার তাই ডিজিটাল কারেন্সি বিল, ২০২১ এ এই ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং এর নিয়ন্ত্রণকে রাখা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া চায় ভারতের নিজস্ব ডিজিটাল মুদ্রা তৈরি করতে৷ দেশে এখনও ব্যক্তিগতভাবে ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এই প্রেক্ষাপটে ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উচ্চপদস্ত আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। কীভাবে এই সমস্যার সমাধান করা যেতে পারে সে বিষয়েও কথা বলেছেন তিনি। 

সম্প্রতি নানা বিজ্ঞাপন দেখা গেছে, এমনকি ফিল্ম তারকাদেরও দেখানো হয়েছে বিটকয়েন (একটি ক্রিপ্টোকারেন্সি)এর বিজ্ঞাপনে। ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের উপর সহজ এবং বেশি রিটার্নের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। এই ধরনের মুদ্রাগুলিকে বিভ্রান্তিকর দাবি করার পাশাপাশি বিনিয়োগকারীদের প্রলুব্ধ করার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে বলে জানান হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.