অসম আদিত্য - দেশ-জাতিৰ অতন্দ্ৰ প্ৰহৰী
শেহতীয়া খবৰ
পাকিস্তানৰ বিখ্যাত আনাৰকলি বজাৰ অঞ্চলত বোমা বিস্ফোৰণ-পদ্মশ্ৰী উদ্ধাৱ কুমাৰ ভৰালীৰ আত্মসমৰ্পণ-গণৰাজ্য দিৱস সমাগত, খাদী বৰ্ডৰ একাংশ কৰ্মচাৰী ব্যস্ত হৈ পৰিছে ৰাষ্ট্ৰীয় পতাকা সাজি উলিওৱাত-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-চীনে কৃত্ৰিম সূৰ্যৰ পিছত এতিয়া নকল চন্দ্ৰ (Artificial Moon) নিৰ্মাণ কৰিছে-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-দেশত কোৰোণাত আক্ৰান্তৰ সংখ্যা দিনক দিনে বৃদ্ধি পাইছে-নামনিৰ ৰে’ল যোগাযোগৰ ক্ষেত্ৰত আজি এক ঐতিহাসিক দিন

বড়দিনের আগে পেলে (Pele), তাঁর পরিবার ও পুরো দুনিয়ায় ছড়িয়ে থাকা তাঁর ভক্তদের জন্য সুখবর

0

বড়দিনের আগে পেলে (Pele), তাঁর পরিবার ও পুরো দুনিয়ায় ছড়িয়ে থাকা তাঁর ভক্তদের জন্য সুখবর। অবশেষে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন তিনি। কয়েক মাস আগেও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ব্রাজিলের (Brazil) বিশ্বকাপ জয়ী এই প্রবাদপ্রতিম। তবে কোলনে টিউমার ( Tumor treatment) বড় আকার ধারণ করার জন্য তাঁকে গত ৯ ডিসেম্বর ফের একবার হাসপাতালের ভর্তি করা হয়েছিল। অবশেষে দুই সপ্তাহ হাসপাতালে থাকার পর বৃহস্পতিবার বাড়ি ফিরে গেলেন ‘ফুটবল সম্রাট’। 

কোলনে টিউমারের জন্য বেশ কয়েক মাস ধরে ভুগছিলেন পেলে। সেই জন্য তাঁকে নিয়মিত কেমোথেরাপি নিতে হচ্ছে। তবে বড়দিনের কথা মাথায় রেখে তাঁর ছুটি মঞ্জুর করেছে সেই হাসপাতালের ডাক্তাররা। ছুটি পেয়ে পেলে যে দারুণ খুশি সেটা তাঁর বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখলেই পরিস্কার। ছুটির খবর কানে আসতেই হাসপাতালের দুই স্বাস্থ্যকর্মীর সঙ্গে বেলুন নিয়ে ছবি তুললেন ৮১ বছরের পেলে। 

হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার পর পেলে ইনস্টাগ্রামে ছবি দিয়ে পেলে লিখেছিলেন, ‘এই হাসির ছবিটা অহেতুক নয়। আপনাদের কথা দিয়েছিলাম, আমি আমার পরিবারের সঙ্গেই ক্রিসমাস পালন করব। আমি আমার বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। আপনাদের সব ধরনের শুভেচ্ছা বার্তার জন্য ধন্যবাদ।’ এ দিকে পেলের মেডিক্যাল রিপোর্ট প্রকাশ করে হাসপাতাল থেকে বলা হয়েছে, ‘বর্তমানে পেলে স্থিতিশীল রয়েছেন। তবে চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে তাঁর শরীরে কোলন টিউমার ধরা পড়ার জন্য চিকিৎসা চলতে থাকবে।’ 

চলতি বছরের শেষ দিকে কেমোথেরাপির জন্য গত ৯ ডিসেম্বর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন পেলে। কিছু শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে তাঁকে হাসপাতালে রেখে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর আগে চলতি বছরই তার শরীরে কোলন টিউমার ধরা পড়েছিল। গত ৪ সেপ্টেম্বর অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সেটা তাঁর শরীর থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.