অসম আদিত্য - দেশ-জাতিৰ অতন্দ্ৰ প্ৰহৰী
শেহতীয়া খবৰ
পাকিস্তানৰ বিখ্যাত আনাৰকলি বজাৰ অঞ্চলত বোমা বিস্ফোৰণ-পদ্মশ্ৰী উদ্ধাৱ কুমাৰ ভৰালীৰ আত্মসমৰ্পণ-গণৰাজ্য দিৱস সমাগত, খাদী বৰ্ডৰ একাংশ কৰ্মচাৰী ব্যস্ত হৈ পৰিছে ৰাষ্ট্ৰীয় পতাকা সাজি উলিওৱাত-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-চীনে কৃত্ৰিম সূৰ্যৰ পিছত এতিয়া নকল চন্দ্ৰ (Artificial Moon) নিৰ্মাণ কৰিছে-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-দেশত কোৰোণাত আক্ৰান্তৰ সংখ্যা দিনক দিনে বৃদ্ধি পাইছে-নামনিৰ ৰে’ল যোগাযোগৰ ক্ষেত্ৰত আজি এক ঐতিহাসিক দিন

কারাগারে বন্দি সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে ডেনমার্ক (Denmark) এখন কারাগার ভাড়া নিতে চলেছে

কারাগারে বন্দি সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে ডেনমার্ক (Denmark) এখন কারাগার ভাড়া নিতে চলেছে। এই বিষয়ে, তারা কসোভোর (Kosovo) সঙ্গে চুক্তি করেছে। এই চুক্তিতে ৩০০টি প্রিজন সেল ভাড়া দেওয়া হবে। ডেনমার্ক পাঁচ বছরের প্রাথমিক সময়ের জন্য প্রতি বছর ১৫ মিলিয়ন ইউরো (প্রায় ১,২৮,১৭,২০,০০০টাকা) প্রদান করবে এবং কসোভোকে সবুজ শক্তির জন্য তহবিল সংগ্রহে সহায়তা করবে।

ডেনমার্ক থেকে বিতাড়িত অপরাধীদের এই ভাড়া করা কারাগারে রাখা হবে এবং তাদের জন্য ডেনমার্কের আইন প্রযোজ্য হবে। কসোভোর কারাগারে বর্তমানে ৭০০ থেকে ৮০০ ব্যারাক রয়েছে। এই ব্যারাকগুলি ব্যবহার করা হচ্ছে না। তাই এখন সেগুলি ভাড়া দিয়ে বার্ষিক আয় করবে কসোভো। একটি যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সোমবার দুই সরকার একটি ‘রাজনৈতিক ঘোষণা’ স্বাক্ষর করেছে যার অধীনে কারাগারগুলো ভাড়া দেওয়া হচ্ছে। সব মিলিয়ে, কসোভো ২০২৩ সাল থেকে রাজধানী প্রিস্টিনা (Pristina) থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরে জিলানে (Gjilan) অবস্থিত কারাগারগুলিকে ভাড়া দিয়ে আগামী ১০ বছরে মোট ২১০ মিলিয়ন ইউরো পাবে। ডেনিশ বিচারমন্ত্রী নিক হেকারুপ (Nick Haekkerup) এক বিবৃতিতে বলেছেন যে এই চুক্তি তাদের কারাগার এবং আধিকারীকদের উপর বোঝা কমিয়ে দেবে। একই সময়ে, নির্বাসনের দন্ডে দণ্ডিত অন্য কোনও দেশের নাগরিকদের একটি স্পষ্ট বার্তা পাঠানো হবে যে ডেনমার্কে তাদের কোনও ভবিষ্যত নেই।

একই সঙ্গে এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতাও শুরু হয়েছে। বিরোধীরা বলছেন, ডেনমার্কের উচিত অবাঞ্ছিত বিদেশী সাজাপ্রাপ্তদের অন্য দেশে বা তাদের পরিবার থেকে দূরে পাঠানো উচিত নয়। তবে, ডেনমার্ক জানিয়েছে যে কসোভোর কারাগারগুলিতে শুধুমাত্র ডেনিশ আইন প্রযোজ্য হবে এবং বন্দীদের তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়া হবে। একই সময়ে, কসোভোর বিচার মন্ত্রী আলবুলেনা হ্যাক্সিউ (Albulena Haxhiu) বলেছেন যে উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ অপরাধীদের কসোভোতে পাঠানো হবেন না। সন্ত্রাসবাদের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়া বা টার্মিনাল অসুস্থতায় ভুগছেন এমন অপরাধীদের কসোভোতে পাঠানো হবে না।

তবে, ইউরোপে বন্দী পাঠানোর ধারণা নতুন নয়। নরওয়ে (Norway) এবং বেলজিয়াম (Belgium) এর আগে নেদারল্যান্ডসে (Netherlands) কারাগার ভাড়া দিয়েছে। ডেনমার্ক বলেছে, কারাগার ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত জাতীয় স্বার্থে নেওয়া হয়েছে কারণ দেশের কারাগারে বন্দীর সংখ্যা বাড়ছে এবং কমেছে কারা কর্মকর্তার সংখ্যা। যাইহোক, এই মুহূর্তে এই চুক্তিটি কসোভোর সংসদে পেশ করা হবে এবং এর সিলমোহর পাওয়ার পরেই উভয় দেশ এই বিষয়ে অগ্রসর হতে পারবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.