অসম আদিত্য - দেশ-জাতিৰ অতন্দ্ৰ প্ৰহৰী
শেহতীয়া খবৰ
New Education Policyৰ ভিতৰত ৩ হাজাৰ হাইস্কুলক ছিনিয়ৰ ছেকেণ্ডাৰী স্কুললৈ উন্নীত কৰা হ'ব-পুনৰ নিমাতী ঘাটত মুখ্যমন্ত্ৰী হিমন্ত বিশ্ব শৰ্মা (Assam CM Himanta Biswa Sarma)-আজি প্ৰকাশ পাব দুৰ্গা পূজাৰ সন্দৰ্ভত ৰাজ্য চৰকাৰে জাৰি কৰিবলগীয়া নতুন SOP-রয়্যাল চ্যালেন্জার্স ব্যাঙ্গালোরের (RCB)হয়ে অনুশীলন ম্যাচে মাঠে নেমেই ঝড় তুললেন এবি ডিভিলিয়ার্স (AB de Villiers)-আফগানিস্তানের অর্থনীতি ধ্বংসের মুখে-আফগানিস্তানের অর্থনীতি ধ্বংসের মুখে-चिल्ली में रहस्यमयी बुखार के कारण पिछले 10 दिनों में आठ बच्चों की मौत-টোকিও অলিম্পিক্সে নীরজ চোপড়ার কোচের পারফরম্যান্সে খুশি নয় অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (এএফআই)-ৰাজ্যত প্ৰদান কৰা হ’ল ২ কোটি ভেকচিনৰ ড’জ-ৰাজ্যত প্ৰদান কৰা হ’ল ২ কোটি ভেকচিনৰ ড’জ

আফগানিস্তানের অর্থনীতি ধ্বংসের মুখে

প্রায় মাস ঘুরে গিয়েছে আফগান ভূম তালিবানি দখলে। তবে এরমধ্যেই সরকার গঠন করতে বেগ পেতে হয়েছে তালিবান শাসকদের। চার দশকের লড়াই এবং প্রায় ১০ হাজার মানুষের মৃত্যুর পরিবর্তে যুদ্ধজয় তো এসেছে কিন্তু ধরাশায়ী হয়েছে আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থা। গত ২০ বছরে শত শত বিলিয়ন ডলার উন্নয়ন খাতে ব্যয় সত্ত্বেও আফগানিস্তানের অর্থনীতি ধ্বংসের মুখে।

খরা এবং দুর্ভিক্ষ দেশকে পিছিয়ে নিয়ে যাচ্ছে এবং বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি অনুযায়ী আশঙ্কা করা হচ্ছে যে মাসের শেষের দিকে খাদ্য সংকোচন হয়ে যেতে পারে, যা ১৪ মিলিয়ন মানুষকে অনাহারের দিকে ঠেলে দেবে। এ সমস্ত বাদ দিয়ে পশ্চিমের মনোযোগ নতুন তালিবান সরকার, নারীদের অধিকার রক্ষার প্রতিশ্রুতি, আল কায়দার মতো জঙ্গি গোষ্ঠীকে আশ্রয় দেবে কি না, এ সমস্ত দিকে। আবার অনেক আফগানদের জন্য প্রধান অগ্রাধিকার হল সহজে বেঁচে থাকা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.