অসম আদিত্য - দেশ-জাতিৰ অতন্দ্ৰ প্ৰহৰী
শেহতীয়া খবৰ
পাকিস্তানৰ বিখ্যাত আনাৰকলি বজাৰ অঞ্চলত বোমা বিস্ফোৰণ-পদ্মশ্ৰী উদ্ধাৱ কুমাৰ ভৰালীৰ আত্মসমৰ্পণ-গণৰাজ্য দিৱস সমাগত, খাদী বৰ্ডৰ একাংশ কৰ্মচাৰী ব্যস্ত হৈ পৰিছে ৰাষ্ট্ৰীয় পতাকা সাজি উলিওৱাত-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-অসম চৰকাৰে কোভিড আক্ৰান্তৰ বাবে সংশোধিত গাইড লাইন জাৰি কৰিছে-চীনে কৃত্ৰিম সূৰ্যৰ পিছত এতিয়া নকল চন্দ্ৰ (Artificial Moon) নিৰ্মাণ কৰিছে-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-বুজন সংখ্যক লোকক এতিয়া বিচাৰি ভেকচিন দিয়াটো হৈ পৰিছে স্বাস্থ্য বিভাগৰ কাৰণে ডাঙৰ প্ৰত্যাহ্বান-দেশত কোৰোণাত আক্ৰান্তৰ সংখ্যা দিনক দিনে বৃদ্ধি পাইছে-নামনিৰ ৰে’ল যোগাযোগৰ ক্ষেত্ৰত আজি এক ঐতিহাসিক দিন

অসমে অবরোধের কারণে মিজোরাম গুরুতর সংকটের সম্মুখীন হচ্ছে।

0

অসমে অবরোধের কারণে মিজোরাম গুরুতর সংকটের সম্মুখীন হচ্ছে। মিজোরামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী আর লালথানগ্লিয়া সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এ কথা জানিয়েছেন। তিনি উল্লেখ করেন যে কোভিড-১৯ দ্বারা গুরুতরভাবে প্রভাবিত গুরুতর রোগী এবং রোগীরা প্রয়োজনীয় ওষুধের প্রাপ্যতাকে গুরুতরভাবে প্রভাবিত করেছে।

তিনি বলেন, ২০২১ সালের ২৬ জুলাই সীমান্ত বিরোধের পর আসাম সরকার মিজোরামে কর্মরত সকল পরিবহনকারীকে ২৯ জুলাই, ২০২১ তারিখে মিজোরামে পণ্য পরিবহন বন্ধ করে গুয়াহাটিতে ডেকে পাঠায়। এটি মৌলিক ওষুধ, জীবনরক্ষাকারী ওষুধ এবং কোভিড-১৯ ওষুধ সহ রাজ্যে আসা যে কোনও ধরণের পণ্য সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করে দেয়। এমনকি অক্সিজেন সিলিন্ডার, অক্সিজেন প্ল্যান্ট পণ্য এবং কোভিড-19 টেস্ট কিটও বন্ধ হয়ে গেছে।প্রায় এক সপ্তাহ ধরে সমস্যাসহ্য করা সত্ত্বেও মিজোরাম এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পায়নি। মিজোরামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী আর লালথানগ্লিয়া দেশের প্রকৃত নাগরিক হিসাবে এই সংকটজনক সময়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া আশা করছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.